অবিশ্বাস্য কয়েকটি মিথ্যা যা আসলে সত্যি

অবিশ্বাস্য কয়েকটি মিথ্যা যা আসলে সত্যি

কয়েকটি এমন তথ্য রয়েছে, যা শুনে আপনার মনে হতেই পারে, সেগুলি সম্পূর্ণ মিথ্যা। কিন্তু বিশ্বাস না-করলেও, সে সবই সত্যি।

জেনে নিন, অবিশ্বাস্য কয়েকটি মিথ্যা যা আসলে সত্যি।

১. কচ্ছপ নিতম্বের মাধ্যমে শ্বাস নেয়- ঠিকই পড়েছেন। কচ্ছপ তার নিতম্বের মাধ্যমেই শ্বাস নেয়।

২. বালির শুধু একটাই রং দেখতে পাই আমরা। কিন্তু বাস্তব হলো বালি একাধিক রঙের হয়। অণুবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে দেখলে বালির একাধিক গঠনবিন্যাস, রং এবং আকার দেখা যাবে।

৩. সেই কোটি কোটি বছর আগে ডাইনোসররা যে পানি পান করেছিল, আজকের যুগে সেই পানিই আমরা পান করছি। বিশ্বাস হচ্ছে না-তো? শরীর থেকে যে পানি বহিষ্কৃত হয়, তা রিসাইকেল হয়। তাই প্রবল সম্ভাবনা- আপনার সামনে গ্লাসে বা বোতলে যে পানি রয়েছে, সেটি সেই পানি যা এক সময়ে ডাইনোসররা পান করেছিল।

৪. চাঁদে যাওয়ার ইচ্ছে থাকলে ৪২ বার কাগজ ভাজ করুন। তা হলে চাঁদমামার ভূমিতে পা রাখতে পারবেন। অবিশ্বাস্য মনে হলেও, অনুমান অনুযায়ী, একটি কাগজকে অর্ধেক ভাজ করলে তা ব্যাখ্যামূলক ভাবে মোটা হয়ে যাবে। অতএব এই অনুমান অনুযায়ী, কেউ যদি ৪২ বার কাগজ ভাজ করতে পারে, তা হলে তা এত বড় হয়ে যাবে, যার সাহায্যে চাঁদে পৌঁছনো সম্ভব হবে।

৫. প্রতি ৫০০০ শিশুর মধ্যে ১টি শিশু মলদ্বার বা পায়ু ছাড়াই জন্মগ্রহণ করে। এ ধরনের শিশুর শুধুমাত্র একটি ছোট্ট ছিদ্র থাকে, যা পরবর্তীকালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে মলদ্বারে পরিণত করা যায়।

৬. আমাদের শরীরে কোষের চেয়েও বেশি সংখ্যক ব্যাকটেরিয়া থাকে। আমাদের শরীরে ১০০ ট্রিলিয়ন কোষ রয়েছে। কিন্তু ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা সেই কোষেরও ১০ গুণ!

৭. আমরা সকলেই ভাবি স্ট্রবেরি আসলে একটি বেরি। তাই তো? বলে রাখি এই ধারণা এক্কেবারেই ভুল। বরং কলা আসলে একটি বেরি, স্ট্রবেরি নয়। সংজ্ঞা অনুযায়ী, ‘একটিমাত্র ডিম্বাশয় থেকে যেফল পরিপূর্ণতা লাভ করে’ সেগুলি বেরি। কিন্তু স্ট্রবেরি এই সংজ্ঞাকে চ্যালেঞ্জ জানায়।

৮. মধু কখনো নষ্ট হয় না। হাজার হাজার বছর আগেকার মধু এখনো খাওয়ার যোগ্য। প্রত্নতত্ত্ববিদরা প্রায়ই একটি অক্ষত মধু আবিষ্কার করেন। এটিই একমাত্র খাদ্যসামগ্রী যা চিরকাল অক্ষত থাকে।

৯. শনি এবং বৃহস্পতি-এই দুই গ্রহেই বৃষ্টি হয়। তবে এ বৃষ্টি যে-সে বৃষ্টি নয়। পৃথিবীতে হিরা অত্যন্ত মূল্যবান রত্ন। কিন্তু শনি এবং বৃহস্পতি গ্রহে? সেখানে তো হিরার বৃষ্টি হয়। শনি এবং বৃহস্পতিগ্রহের আবহাওয়ায় এমন কিছু রাসায়নিক থাকে যা পানির পরিবর্তে হিরাতে পরিণত হয়ে যায়।

১০. পিরামিড তৈরির ১০০০ বছর পর ম্যামথ পৃথিবীতে থেকে বিলুপ্ত হয়। প্রায় ১০ হাজার বছর আগে অত্যধিক শিকারের জেরে ম্যামথকূল ধ্বংস হয়। তবে ৩৬০০ বছর আগে শেষ ম্যামথের মৃত্যু হয়েছে।

১১. বেটি হোয়াইটের পর স্লাইসড ব্রেডের জন্ম। জনপ্রিয় মার্কিন অভিনেত্রী, কমেডিয়ান, গায়িকা, লেখিকা বেটি হোয়াইট প্রায়ই নিজের বয়স নিয়ে ঠাট্টা-তামাসা করতেন। কিন্তু তার জন্ম ১৯২২ সালে। অথচ ১৯২৮ সালে স্লাইসড ব্রেড প্রথম তৈরি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *