ইমামুল ইসলামের কবিতা

ইমামুল ইসলামের কবিতা

মৌলিক রঙ

-ইমামুল ইসলাম 

চায়ের চুমুকের পেয়ালায় উড়ন্ত বাষ্পের স্বাধীনতা,

ঠান্ডার কনকনে তেজে, কাঁপানো ঠোঁটে সেতারের সুর,

সজিবতার সিক্ত থালায়, রুগ্ন স্বপ্নের বেপরোয়া ভাব,

পুরাতন কাপ-পিরিচে ফাটল, ভৃত্যেরা তবুও ভাঙছেনা।

মোবাইলের উড়োবার্তায় কামনার সংক্রমণ,

ডানা ভেঙে খসে পরে রাত ও দিনের  সরু গলিতে,

হাজারো জীবন্ত ভাবনা, শূন্যের সিংহাসনে ভাসমান,

বুলডোজারের ভাঙনের নেশার জিবে, তপ্ত চায়ের ছোবল।

ভাঙনের পাড় রক্ষায়,

নতুন বক্ষের কামরায়,

চালান হচ্ছে পুরাতন ঐতিহ্যের কনক্রিট, 

জমাট হচ্ছে, না ভাঙার মনন ও স্পিরিট।

মহামন্ত্রের নাম কষে ভন্ডামি,

চোখ ভুজে দেখি খোঁড়ামি, 

চেতনার চ্যাঁলাবাজের অন্ডকোষে, বুনো-শুয়োর আস্ফালন, 

স্বপ্নের গলায় ধারালো ছুরি, ভুলে যায় চেতনার মৌলিক রঙ।

************

লাল বিধান

-ইমামুল ইসলাম 

সং করে বিধান লেখা নয়, লাল রঙের কালিতে,

সাধারণের তেজের তর্জনী, 

দীর্ঘদিনের লালের স্রোতে,সাঁতার কাটতে কাটতে,

তীরে উঠে ভূখন্ডের মাস্তুলে; বীরত্ব উড়ছে শক্ত দন্ডের শীর্ষে। 

বৈষম্যের বেড়া – তোমার ক্ষেতে বাম্পার ফলন, 

আমার ক্ষেতের উর্বরতা চুরি করে; আমার ক্ষেতের পুষ্টিগুণ হত্যা, 

যাক চুরির গোপনীয় লিঙ্গ কেটে দিলাম। 

আমার ভূখন্ডের বিশাল স্লেটে – আমার বর্ণমালার ফলন হবে, 

ফলনে ফলবে জাতীয় গীত, সমানাধিকারের নামতা, 

কেটেছেটে  আগাছা, ক্ষেতে সভ্য সবুজের চাষে;

আমার শস্যের আত্মপরিচয় – ভূখন্ডের বাতাসে দোলে। 

ভিনদেশী হাইব্রিড ছোলা, আমার ভূখন্ডে বেমানান, 

রোগজীবাণু ছড়ানোর অভীপ্সা – শুধুই তোমার খায়েশ, 

অন্যের ইমিউন সিস্টেমের কার্যকারিতায় আঘাত, 

নিজস্ব ফলনের ভূমিতে, মরুভূমির যক্ষ্মার কাশাকাশি। 

আমার ভূখন্ডের বিশুদ্ধতায়, জোর করে প্রবেশ;

তোমার নিজস্বতার খোলসে, আমার মূত্রের ঘ্রাণ, 

আমার ফলনের জলজ গীতের পাশে, তোমার স্থান দখল, হাস্যকর বৈ অন্য কিছু নয়। 

কেটে পড়ো নিজ আত্মপরিচয়ের খোঁজে, 

জানি, পাবেনা – তোমার যে নিজস্ব বলে নাই কিছু। 

১ thought on “ইমামুল ইসলামের কবিতা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *