কম ঘুমালে যেসব ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে

কম ঘুমালে যেসব ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে

শারীরিক সুস্থতার জন্য পর্যাপ্ত ঘুম অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু কম ঘুমের ফল যে শরীরের পক্ষে কতখানি মারাত্মক হতে পারে, তা সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষায় প্রকাশ পেয়েছে। পৃথিবীর জনসংখ্যার এক তৃতীয়াংশই দিনে ৫ থেকে ৬ ঘণ্টা অথবা তার চেয়ে কম সময় ঘুমান। এর অত্যন্ত ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে শরীরে। কতটা ক্ষতিকর হতে পারে সেই প্রভাব?

জেনে নিন ৮ ঘণ্টার কম ঘুমালে যেসব ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে শরীরে।

১. হার্ভার্ড মেডিকাল স্কুলের একটি রিপোর্টে জানানো হচ্ছে, যাঁরা দিনে আট ঘণ্টার কম ঘুমান, তাঁদের অস্বাভাবিক মৃত্যুর সম্ভাবনা ১৫ শতাংশ বেড়ে যায়।

২. ঘু‌ম কম হলে সারাদিন ঘুম ঘুম বোধ করা, ও অবসাদে ভোগার সমস্যা দেখা দেয়। তাছাড়া, অতিরিক্ত খিদে বোধ করার কারণে শরীরে মেদ জমতে পারে।

৩. যাঁদের ঘুম কম, তাঁদের চট করে ঠান্ডা লাগার সমস্যা দেখা যায়। যৌন ইচ্ছা হ্রাস পায়, তাছাড়া চামড়াও শিথিল হয়ে আসে দ্রুত।

৪. দীর্ঘদিন ধরে ঘুম কম হতে থাকলে ডায়বেটিস, স্থূলতা, হার্টের রোগ, এমনকী ক্যানসারের সম্ভাবনা পর্যন্ত বৃদ্ধি পায়।

৫. ঘু‌ম কম হলে সম্ভাবনা বাড়ে নিউমোনিয়া বা ফুসফুসের রোগেরও।

৬. যাঁদের কম ঘুমনো অভ্যাস, তাঁদের অনেকেই মানসিক অবসাদ ও উদ্বেগে ভোগেন। অল্পেই মেজাজ হারানো, কিংবা সারাক্ষণ মন খারাপের অনুভূতিও দেখা যায় তাঁদের মধ্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *