চলে গেলেন ক্রিকেটার মোশাররফ রুবেল

:: নাগরিক প্রতিবেদন ::

ব্রেইন টিউমারের সঙ্গে লড়াই করে চলে গেলেন ক্রিকেটার মোশাররফ রুবেল। মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটায় তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে রুবেলের বয়স হয়েছিল ৪০ বছর।

স্ত্রী ও পাঁচ বছর বয়সী এক সন্তান রেখে গেছেন তিনি।

শিক্ষাজীবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে ছিলেন তিনি।

বাংলাদেশের হয়ে পাঁচটি ওয়ানডে খেলা মোশাররফ রুবেলের মস্তিষ্কে টিউমার ধরা পড়ে ২০১৯ সালের মার্চে। এরপর সিঙ্গাপুরে গিয়ে অস্ত্রোপচার করিয়ে সেই টিউমার অপসারণও করা হয়েছিল। মোটামুটি সুস্থই হয়ে উঠেছিলেন তিনি।

দেশের বাইরে গিয়ে কেমোথেরাপিসহ জটিল সব চিকিৎসার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তাকে।

গত মাসের মাঝামাঝি শারীরিক জটিলতা নিয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন।  

চারদিন আগে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় হাসপাতাল থেকে ছাড়াও পান রুবেল। কিন্তু সোমবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হয়। মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান রুবেল। 

সিঙ্গাপুরে অস্ত্রোপচার ও সফল কেমোথেরাপির পর মনে হয়েছিল, তিনি সুস্থই হয়ে উঠেছেন। কিন্তু গত জানুয়ারি মাসে তাঁর মস্তিষ্কে নতুন করে টিউমার ধরা পড়ে। আবারও শুরু হয় কেমোথেরাপি। নিতে হয় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ)। তাঁর শারীরিক অবস্থা ভালো–মন্দের মধ্য দিয়েই যাচ্ছিল। চিকিৎসার ব্যয় মেটাতে হিমশিম খাচ্ছিল তাঁর পরিবার। তবে দেশের ক্রিকেটমহল তাঁর পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে। আগামী সপ্তাহেই তাঁর আবার কেমোথেরাপি নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব চেষ্টা ব্যর্থ করে চলে গেলেন এই বাঁহাতি স্পিনার।

২০১৯ সালের মার্চে ব্রেন টিউমার ধরা পড়ে রুবেলের। সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ২০১৯ সালের ১৯ মার্চ নিউরো সার্জন এলভিন হংয়ের তত্ত্বাবধানে সফল অস্ত্রোপচার হয় তার।

২০২০ সালে সুস্থ, স্বাভাবিক হয়ে মাঠে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। কিন্তু নভেম্বরে আবার অসুস্থ হন। ২০২১ সালের জানুয়ারির শেষ সপ্তাহে এমআরআই করার পর দেখা গেছে, পুরোনো টিউমারটি আবার নতুন করে বাড়ছে।

৪০ বছর বয়সী মোশাররফ রুবেল দেশের হয়ে ৫ ওয়ানডেতে পেয়েছেন ৪ উইকেটে। ২০০৮ সালে চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তাঁর অভিষেক। খুব নিয়মিত কখনোই হতে পারেননি। সর্বশেষ জাতীয় দলে খেলেছেন ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।

ঘরোয়া লিগে নিয়মিত খেলে যাওয়া রুবেল প্রথম শ্রেণির ১১২ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৩৯২ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ব্যাট হাতে দুই সেঞ্চুরি আর ১৬টি ফিফটির সাহায্যে ৩ হাজার ৩০৫ রান সংগ্রহ করেন।  

লিস্ট ‘এ’ ১০৪ ম্যাচে অংশ নিয়ে ১২০ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ব্যাট হাতে ৮ ফিফটির সাহায্যে ১ হাজার ৭৯২ রান সংগ্রহ করেন। আর টি-টোয়েন্টির সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে ৫৬ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৬০ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ৬২ রান সংগ্রহ করেন রুবেল।

ঘরোয়া ক্রিকেটে বরিশাল বিভাগ, মধ্যাঞ্চলের হয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলেছেন। বিপিএলে খেলেছেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স, খুলনা টাইটানস প্রভৃতি দলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.