পোলট্রি কোম্পানিগুলোর ৫১৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা মুনাফা

:: নাগরিক প্রতিবেদন ::

দাম বৃদ্ধির সুযোগ নিয়ে গত ১৫ দিনে দেশের পোলট্রি কোম্পানিগুলো ৫১৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা অতিরিক্ত মুনাফা করেছে বলে দাবি করেছে দেশের প্রান্তিক খামারি ও ডিলারদের এই সংগঠন বাংলাদেশ পোলট্রি অ্যাসোসিয়েশন। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে শনিবার এ দাবি করেন সংগঠনটির নেতারা।

লিখিত বক্তব্যে সংগঠনটির সভাপতি সুমন হাওলাদার বলেন, দেশের পোলট্রি খাত এখন মাফিয়া চক্রের হাতে চলে গেছে। চক্রটি সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে সারা দেশে প্রান্তিক খামারিদের ধ্বংস করতে চাইছে। এরই মধ্যে তাদের পরিকল্পিত চক্রান্তে সারা দেশে প্রায় অর্ধেক প্রান্তিক খামার বন্ধ হয়ে গেছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খন্দকার, সহ-সভাপতি বাপ্পি কুমার দেবসহ জ্যেষ্ঠ নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে পোলট্রি অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা বলেন, দেশে প্রতিদিন ডিমের চাহিদা ৪ কোটি ৫০ লাখ। এর মধ্যে পোলট্রি কোম্পানিগুলো উৎপাদন করে ২ কোটি ৫০ লাখ ডিম। আর খামারিরা উৎপাদন করেন ১ কোটি ৩০ লাখ ডিম।

তাদের দাবি, পোলট্রি কোম্পানিগুলো প্রতিটি ডিমে অতিরিক্ত ৩ টাকা বেশি মূল্য নির্ধারণ করে। এর ফলে গত ১৫ দিনে পোলট্রি কোম্পানিগুলো শুধু ডিম থেকে ১১২ কোটি ৫০ লাখ টাকা অতিরিক্ত মুনাফা করেছে।

পোলট্রি খামারিরা আরও জানান, মুরগির মাংস কৃত্রিম সংকট তৈরি করে প্রতি কেজিতে বাড়তি নেওয়া হয়েছে ১৫ টাকা। এর ফলে পোলট্রি কোম্পানিগুলো গত ১৫ দিনে অতিরিক্ত মুনাফা করেছে ১৭২ কোটি টাকারও বেশি।

এছাড়া প্রতিদিন ১ কোটি ৩০ লাখ মুরগির বাচ্চা বিক্রি থেকে গড়ে ১২৯ টাকা অতিরিক্ত নিয়েছে নেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে পোলট্রি কোম্পানিগুলো গত ১৫ দিনে অতিরিক্ত মুনাফা করেছে ২৩৪ কোটি টাকা।

সব মিলে পোলট্রি কোম্পানিগুলো গত ১৫ দিনে ৫১৮ কোটির বেশি টাকা মুনাফা করেছে বলে দাবি করেছেন দেশের প্রান্তিক খামারি ও ডিলারদের সংগঠন বাংলাদেশ পোলট্রি অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *