টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত অধিনায়ক সাকিব

:: নাগরিক নিউজ ডেস্ক ::

এশিয়া কাপ, টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও নিউজিল্যান্ডে সিরিজে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দেবেন সাকিব আল হাসান। শনিবার বিকালে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির নতুন চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস এ তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে বিকাল ৩টা ১১ মিনিটে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের গুলশানের আইভি ভবনে অবস্থিত বাসভবনে আসেন সাকিব।  সেখানে অধিনায়কত্বের ইস্যুতে নাজমুল হাসান পাপনের বাসায় বৈঠকে বসেন তিনি।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দুই পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন ও জালাল ইউনুস। সঙ্গে ছিলেন দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমন। বিকাল ৪টার পর শুরু হয় এই বৈঠক।

পরে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনসের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানান, আসন্ন এশিয়া কাপ, নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ এবং বিশ্বকাপের জন্য অধিনায়ক করা হয়েছে সাকিবকে।  চলতি বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও জাতীয় দলের অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন সাকিব।

আগেই গুঞ্জন ছিল আবারও টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব পাচ্ছেন সাকিব। তবে সম্প্রতি অনলাইন বেটিং সাইট বেট উইনারের প্রতিষ্ঠান বেট উইনার নিউজের সঙ্গে চুক্তি করায় শুরু হয় ধোঁয়াশা। যদিও অনেক জলঘোলার পর বৃহস্পতিবার সেই চুক্তি বাতিল করেন তিনি।

এরপরই নিশ্চিত হয়ে যায় সাকিবের নেতৃত্ব পেতে আর কোন বাধা নেই। এরই ধারবাহিকতায় শনিবার তৃতীয় মেয়াদে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হলেন তিনি। এর আগে ২০০৯ সাল ও ২০১৭ সালে এই ফরম্যাটে অধিনায়ক হয়েছিলেন এই অলরাউন্ডার।

তার অধীনে ২১ ম্যাচে ৭টিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। যদিও সাফল্যের চেয়ে ব্যর্থওতার পাল্লা ভারী। ২১ ম্যাচের ১৪টিতেই হারের মুখ দেখতে হয়েছিল সাকিবকে। এবার দেখার বিষয় তৃতীয় মেয়াদে সাফল্যের পাল্লা আরও কতখানি বাড়াতে পারেন তিনি।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দল

৩ বছর পর বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে ফিরেছেন একসময় ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম ফরম্যাটের ‘বিশেষজ্ঞ’ তকমা পাওয়া সাব্বির রহমান।

এদিকে জিম্বাবুয়ে সিরিজের টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা না হলেও এশিয়া কাপ দিয়ে আবারও এই ফরম্যাটের ক্রিকেটে ফিরলেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। চোটাঘাতে দীর্ঘ বিরতির পর দলে জায়গা করে নিয়েছেন অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও।

ধীরগতির ব্যাটিংয়ের জন্য ইদানিং বেশ সমালোচনার শিকার হচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ। মারকাটারি ব্যাটিংয়ের ফরম্যাট টি-টোয়েন্টিতে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপের দলে তার স্থান পাওয়া নিয়ে তাই অনিশ্চয়তা ছিল। তবে শেষ পর্যন্ত এশিয়া কাপের দলে টিকে গেছেন সাকিবের কাছে টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব হারানো এই অলরাউন্ডার।

সবশেষ জিম্বাবুয়ে সফরের টি-টোয়েন্টি দলে থাকা ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার এবং নাজমুল হোসেন শান্তর জায়গা হয়নি এশিয়া কাপের স্কোয়াডে। জিম্বাবুয়ে সফরে টি-টোয়েন্টি খেললেও চোটের কারণে এশিয়া কাপের দলে নেই পেসার শরিফুল ইসলাম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজে অভিষেক হওয়া ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমনকে রাখা হয়েছে স্কোয়াডে।

২৭ আগস্ট থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে মাঠে গড়াবে এশিয়া কাপ। আগামী ৩০ আগস্ট শারজায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশের এশিয়া কাপ মিশন।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দল

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), এনামুল হক, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, মাহমুদউল্লাহ, শেখ মেহেদী, সাইফউদ্দিন, হাসান মাহমুদ, মুস্তাফিজুর রহমান, নাসুম আহমেদ, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, ইবাদত হোসেন, পারভেজ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান ও তাসকিন আহমেদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *