লংমার্চে গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে ইমরান খান

:: নাগরিক নিউজ ডেস্ক ::

সরকারবিরোধী লংমার্চ চলাকালীন গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রধান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

বৃহস্পতিবার পাঞ্জাব প্রদেশের ওয়াজিরাবাদের আল্লাহ হো চকের কাছে ইমরান খানের কন্টেইনারে গুলি চালায় অজ্ঞাত হামলাকারীরা। এতে তার পায়ে তিনটি গুলি লেগেছে।

পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরীর বরাতে ডনের খবরে বলা হয়, হামলায় ইমরান খান ছাড়াও আরও দুইজন আহত হয়েছেন। তারা হলেন সিনেটর ফয়সাল জাভেদ এবং আহমেদ চাত্তা। এ ঘটনায় এক সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে।

পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এ প্রসঙ্গে কথা বলেছেন পিটিআইয়ের আরেক নেতা ইমরান ইসমাইল। তিনি বলেন, ইমরান খানকে লক্ষ্য করে তিন থেকে চারবার গুলি করা হয়েছে।

পাকিস্তানের বল টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইমরান ইসমাইল বলেন, ওই হামলার সময় তিনি ইমরান খানের পাশে ছিলেন। পাকিস্তানের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর পায়ে তিন থেকে চারটি গুলি লেগেছে। এ ঘটনায় পিটিআইয়ের আরেক নেতা ফয়সাল জাভেদ আহত হয়েছেন।

পাকিস্তানে আগাম নির্বাচনের দাবিতে করাচি থেকে রাজধানী ইসলামাবাদের উদ্দেশ্যে লংমার্চ শুরু করেছেন ইমরান খান। গত শুক্রবার থেকে এই লংমার্চ শুরু হয়। এই লংমার্চে কন্টেইনার ব্যবহার করে বিশেষ গাড়ি তৈরি করা হয়েছে। এই গাড়িতে যাত্রা করছেন ইমরান খান। ইমরান ইসমাইল বলেন, ওই কন্টেইনারের সামনে থেকে এক–৪৭ রাইফেল ব্যবহার করে গুলি চালানো হয়েছে।

ইমরান খানের ওপর গুলিবর্ষণকারী যুবককে শনাক্ত করে গেলেও পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি

এদিকে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, লংমার্চে গুলিবিদ্ধ ইমরান খানকে অন্য একটি গাড়িতে করে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পাঞ্জাব পুলিশের একটি দলও ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে।

পাকিস্তানের বেশ কয়েকটি টেলিভিশন চ্যানেলের ফুটেজে দেখা যায়, পায়ে ব্যান্ডেজ বাঁধা অবস্থায় আহত ইমরান খানকে তার নিরাপত্তা দলের সহায়তায় একটি গাড়িতে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *