ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষে আহত পথচারীর মৃত্যু

:: নাগরিক নিউজ ডেস্ক ::

রাজধানীর নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও ঢাকা কলেজের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় নাহিদ নামে আহত পথচারী একজনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নাহিদ হোসেন (২০) নামের ওই তরুণ বাটা সিগন্যাল এলাকায় ডি–লিংক নামের একটি কুরিয়ার সার্ভিসের ‘ডেলিভারিম্যান’ হিসেবে কাজ করতেন। তার বাসা কামরাঙ্গীরচর দেওয়ান বাড়ি এলাকায়।

নাহিদের স্ত্রী ডালিয়া আক্তার সাংবাদিকদের জানান, মঙ্গলবার সকালে বাসা থেকে তিনি কর্মস্থলে আসেন। পরে ফেসবুকে স্বামী নাহিদের হাসপাতালে ভর্তির খবর পান তিনি। নিউমার্কেট এলাকায় সংঘর্ষের সময় আহতাবস্থায় রাস্তায় পড়েছিলেন নাহিদ।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাত নয়টা ৪০ মিনিটে তাঁর মৃত্যু হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশের দেওয়া তথ্যমতে, দুপুরে নিউমার্কেট এলাকায় সংঘর্ষের মধ্যে মাথায় আঘাত পান নাহিদ। আরও কয়েকজন আহত ব্যক্তির সঙ্গে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান পথচারীরা।

নাহিদের বাসা ঢাকার কামরাঙ্গীরচরে। তিনি সাত মাস আগে বিয়ে করেছেন।

গতকাল সোমবার রাতে রাজধানীর নিউমার্কেটের একটি খাবারের দোকানের কর্মীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থীর কথা-কাটাকাটি হয়। এর জেরে গভীর রাতে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ান নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীরা। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়ে। সংঘর্ষ রাত আড়াইটা পর্যন্ত গড়ায়।

এ ঘটনার জেরে মঙ্গলবার সকাল থেকে দিনভর দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। বিকেলে পুলিশ এসে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে দুই পক্ষকে সরালেও পরিস্থিতি শান্ত হয়নি। ঢাকা কলেজের ছাত্রদের বিকেলের মধ্যে ছাত্রাবাস ছাড়ার নির্দেশনা দেওয়া হলেও তাঁরা তা করেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.